দৈনিক আবেশভূমি ডেস্ক :এগরা কাঁথি :পূর্ব মেদিনীপুর।

১৬জুন সোমবার তৃণমূল অঞ্চল প্রধানের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগে সরব তৃণমূলেরই নেতাকর্মীদের একাংশ। ঘটনাটি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলের বেতকুন্ডু গ্রাম পঞ্চায়েতে। মঙ্গলবার বিকেলে দীর্ঘক্ষণ ধরে বেতকুন্ডু পঞ্চায়েত প্রধান মধুমিতা দাস হালদারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলে ঘেরাও করে রাখেন বেশকিছু তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ও কর্মীরা। তাদের অভিযোগ কোন জেনারেল মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করেন না। সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পে তিনি তার নিজের ঘনিষ্ঠদের পাইয়ে দেন। তিনি প্রায় অফিসে আসেন না।

    যার ফলে বিভিন্ন কারণে সাধারণ মানুষ প্রধানের দেখা না পাওয়ায় সমস্যার সম্মুখীন হন। বঞ্চিত থাকে উপযুক্ত প্রাপক স্থানীয় মানুষ। তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীদের অভিযোগ, সাম্প্রতিক ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ক্ষতিগ্রস্তদের নামের তালিকায় প্রধান একাধিক ভাবে দুর্নীতি করেছে। উপযুক্ত ক্ষতিগ্রস্তরা এই তালিকায় স্থান পায়নি। এমনকি কোন ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তি প্রধানের কাছে আবেদন পত্র নিয়ে গেলে তা তিনি গ্রহণ করেন না। মঙ্গলবার বিকেলে পঞ্চায়েত প্রধানের অঞ্চল অফিসে আসার খবর পেয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতাকর্মী ও বেশকিছু তৃণমূল পঞ্চায়েত সদস্যরা মিলে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। বিক্ষোভ চলাকালীন অঞ্চল প্রধান এক পঞ্চায়েত সদস্যকে চড় মারেন বলেও অভিযোগ। আর এই সব মিলিয়ে বলা চলে এবার খোদ শুভেন্দু অধিকারীর ঘরেই প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। এদিন কয়েক ঘন্টা ধরে প্রধানকে ঘিরে রেখে বিক্ষোভের পর মহিষাদল থানার পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। 

      Share

      Leave a Reply

      Your email address will not be published.