গৌরীশংকর মহাপাত্র : দৈনিক আবেশভূমি : এগরা কাঁথি:পূর্ব মেদিনীপুর।পটাশপুর-২এর বাল্যগোবিন্দপুর রাজবংশী স্পোর্টস একাডেমী’র উদ্যোগে টিকরাপাড়া মা লক্ষ্মী প্রিয়া ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি ব্লকের প্রায় ৫টি গ্রামের বন্যা বিধ্বস্ত এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর কর্মসূচি পালন করে। ১৭ই সেপ্টেম্বর সোমবার তারা বসে খাওয়া ব্যবস্থা করে। সাদা ভাত, কুমড়োর ঘন্ট, নবরত্ন, ডিমের ঝোল, চাটনি এবং ৩ লিটার জল প্রতি পরিবারে দেয়। যারা খুবই কষ্টের মধ্যে, দু’বেলা দু’মুঠো পেট ভরে খেতে পাচ্ছেন না,নানা প্রতিকূলতার মধ্যে জীবনযাপন ,সোসাইটির উদ্যোগে প্রতিটি পরিবারের মানুষ আনন্দের সঙ্গে এই আয়োজনে অংশগ্রহণ করেন। সোসাইটির সম্পাদক রতন কুমার সাহু বলেন- আমরা শুধু এই দুর্যোগপূর্ণ পরিস্থিতিতে ৩৬৫ দিন মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করি। ১৯শে সেপ্টেম্বর থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর প্রতিদিন পটাশপুর-১ ও ২ ব্লকের ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় কখনো শুকনো কখনো রান্না খাবার মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছি, তাদের পাশে থেকেছি। যাদের ঘরবাড়ি ভেঙ্গে গেছে তাদের হ একটি

    করে ত্রিপল দিয়েছি। সোসাইটির সভাপতি সূর্যকান্ত রাহুল বলেন- এই সোসাইটি খোলার মূল লক্ষ্য মানুষের সহযোগিতায় নিয়ে মানুষের সেবা করা। যাদের সামর্থ রয়েছে সেই সমস্ত মানুষের থেকে সহযোগিতা নিয়ে অসহায় দুর্যোগে ক্ষতিগ্ৰস্ত পিছিয়ে পড়াদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করি। বাল্য গোবিন্দপুর স্পোর্টস একাডেমির সম্পাদক স্বপন দাস বলেন- বন্যায় সম্পূর্ণভাবে আমরা ক্ষতিগ্রস্ত তাই এই ক্লাব “মা লক্ষ্মী প্রিয়া ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি”র সঙ্গে যোগাযোগ করি এবং অসুবিধায় থাকা প্রায় ৬০০ পরিবারের নাম নথিভুক্ত করে তাদের রান্না খাবার তুলে দেই।

      Share

      Leave a Reply

      Your email address will not be published.